প্রিয়ার পক্ষে সাফাই গাইছে জি নিউজ

নিউজ ডেস্ক : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করেছেন বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রিয়া সাহা।

 

অথচ ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজ প্রিয়ার পক্ষ নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করেছেন। জি নিউজ তাদের সংবাদের শিরোনাম করেছে “ধর্মীয় মৌলবাদীদের সাজা নয়, নির্যাতিতা প্রিয়াকেই কাঠগড়ায় তুলল বাংলাদেশ সরকার”

 

তাদের সংবাদে বলা হয়েছে- বাংলাদেশে হিন্দু-সহ সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উপরে নির্যাতনের কথা মার্কিন প্রেসিডেন্টের সামনে তুলে ধরেছেন প্রিয়া সাহা। দুষ্কৃতীদের বিচার হয় না বলেও অভিযোগ করেছেন ওই মহিলা। কিন্তু সেই মহিলাকেই কার্যত কাঠগড়ায় তুলল বাংলাদেশ সরকার।

 

জি নিউজ বলছে, অতিসম্প্রতি বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের ঘরবাড়ি জ্বালানো থেকে শুরু করে ধর্মীয়স্থানে হামলা করছে। এসব অপরাধের পর পার পেয়ে যাচ্ছে দুষ্কৃতীরা। এমনকি মুক্তমনা ব্লগারদের হত্যাও করা হচ্ছে বাংলাদেশ।

 

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) হোয়াইট হাউসে ধর্মীয় নিপীড়নের শিকার ২৭ ব্যক্তির সঙ্গে বৈঠক করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সেখানে ১৬টি দেশের প্রতিনিধি অংশ নেন। বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রিয়া সাহাও প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ পান।

 

প্রিয়া সাহা মার্কিন প্রেসিডেন্টকে বলেন, ‘আমি বাংলাদেশ থেকে এসেছি। বাংলাদেশে ৩ কোটি ৭০ লাখ হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিষ্টান নিখোঁজ রয়েছেন। দয়া করে আমাদের লোকজনকে সহায়তা করুন। আমরা আমাদের দেশে থাকতে চাই।’

 

এরপর তিনি বলেন, ‘এখন সেখানে ১ কোটি ৮০ লাখ সংখ্যালঘু রয়েছে। আমরা আমাদের বাড়িঘর খুইয়েছি। তারা আমাদের বাড়িঘর পুড়িয়ে দিয়েছে, তারা আমাদের ভূমি দখল করে নিয়েছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনো বিচার পাইনি।’

 

ভিডিওতে দেখা গেছে, এক পর্যায়ে ট্রাম্প নিজেই সহানুভূতির সঙ্গে এই নারীর সঙ্গে হাত মেলান।

(Visited 1 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eighteen + 11 =