ম্যাচ পরিত্যক্ত হলে যে কঠিন সমীকরণে বাংলাদেশ

নিউজ ডেস্ক : বাংলাদেশের বড় প্রতিপক্ষ কে- বৃষ্টি নাকি শ্রীলঙ্কা? এমন প্রশ্ন এখন করাই যায়। তবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে যে বাংলাদেশ জিতবেই এটাও নিশ্চিতভাবে তো বলা যায়না। তবু বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ যেসব দলের মুখোমুখি হয়েছে তাদের মধ্যে শ্রীলঙ্কাই অপেক্ষাকৃত সহজ।

বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি বলেন, ‘এখন ছেলেরা জয়ের জন্য ক্ষুধার্ত, আমরা টানা দুটো ম্যাচ হেরেছি।’

মাশরাফির চিন্তা জুড়ে এখন শুধু আজকের খেলা। তার কথায়, ‘ইংল্যান্ডের বিপক্ষেও আমরা দুটো ম্যাচে জিতেছিলাম [গতবারের] বিশ্বকাপে, এবার হেরে গিয়েছি বড় ব্যবধানে। শ্রীলঙ্কার সঙ্গে তাই আগে কী হয়েছে কোন ব্যাপার না।’

বিশ্বের অন্য দল কী বাংলাদেশকে সমীহ করছে- এমন প্রশ্নে সোজাসাপ্টা উত্তর দেন মাশরাফী। তিনি বলেন, ‘২২ গজে সমীহ বা সম্মান কোন কাজে আসে না। কে আমাদের ছোট দল বলছে বা কে আমাদের বড় দল বলছে সেটা আমাদের চিন্তার বিষয় না।’

কিন্তু জিততেই হবে এমন একটা ম্যাচে কি চাপ অনুভব করছে দল? মাশরাফির কথায়, ‘আমরা সব ম্যাচেই জয়ের জন্য নামি। প্রতি ম্যাচেই চাপ থাকবে, আমি বলবো না যে চাপ নেই, কিন্তু একই সময়ে আমাদের কাজ করে যেতে হবে। শেষ পর্যন্ত আমাদের জিততে হবে।’

বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক বলেন, ‘প্রথম তিনটা ম্যাচ এমন দলের সঙ্গে খেলেছি যে এই কন্ডিশনে সেরা, আমরা হয়তো দুটো জিততে পারতাম। সেরা জায়গায় কেউ কেউ সেরাটা দিতে পারিনি, যে মাঠে ভালো খেলবে সেটাই গুরুত্বপূর্ণ।’

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশে হার রান বা দলীয় অবস্থা যেকোনো বিবেচনায় ছিল বড় ব্যবধানের। ১০৬ রান, প্রতিপক্ষ যেখানে করেছে ৩৮৬। এসব সংখ্যা নিশ্চিতভাবেই ক্রিকেটারদের মাথায় ছিল। ব্রিস্টলের অনুশীলনেও দেখা গিয়েছে বাড়তি মনোযোগ।

বিশেষত তামিম ইকবালকে নিয়ে আলাদা সময় কাটান ব্যাটিং কোচ নেইল ম্যাকেঞ্জি। মেহেদী হাসান মিরাজ ব্যাট হাতে পাচ্ছেন আত্মবিশ্বাস। লম্বা সময় নেটে ব্যাটিং করেন মিরাজ।

কোচ স্টিভ রোডস মোসাদ্দেক-মিরাজকে একসঙ্গে দীক্ষা দেন। লোয়ার অর্ডার সামলানোর টোটকা শেখান তাদের। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ভুল বোঝাবুঝির রান আউট এবং রান আউটের সহজ সুযোগ নিজ হাতে নষ্ট করার পর মুশফিকুর রহিম ছিলেন মানসিকভাবে কিছুটা আহত। সেই আঘাত ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যাট হাতে সেরে তোলার চেষ্টাই করেছেন তিনি।

এখনো পর্যন্ত টুর্নামেন্টের সেরাদের তালিকাতেই আছেন ব্যাটসম্যান মুশফিক। ৩ ম্যাচে ১৪১ রান। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সর্বশেষ ম্যাচেই মুশফিকের রান ১৪৪।

বাংলাদেশ ফেভারিট?

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এই ম্যাচটির একটা ভিন্ন প্রেক্ষাপট রয়েছে। বিশ্বকাপে এই প্রথম কোনো ম্যাচে বাংলাদেশ নামছে ফেভারিট হিসেবে। র‍্যাঙ্কিংও সে কথাই বলছে। বাংলাদেশ আছে সাতে, শ্রীলঙ্কা আছে নয়ে।

তবে এই বিশ্বকাপে প্রথম তিন ম্যাচ শেষে শ্রীলঙ্কার পয়েন্ট বেশি। এক জয়, এক হার শ্রীলঙ্কার, সঙ্গে যোগ হয়েছে পাকিস্তানের বিপক্ষে পরিত্যক্ত হওয়া ম্যাচের এক পয়েন্ট।

তাই আজকের ম্যাচটি পরিত্যক্ত হলে পরের পাঁচটির মধ্যে চারটি ম্যাচেই জিততে হবে বাংলাদেশকে। শ্রীলঙ্কা ব্রিস্টলে আছে বেশ কিছুদিন ধরে। আর বাংলাদেশ সোমবার প্রথম মাঠে নেমেছে কাউন্টি গ্রাউন্ডে।

(Visited 1 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × 4 =