ওসি মোয়াজ্জেমের জামিন

নিউজ ডেস্ক : ফেনীর সোনাগাজীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফী হত্যার ঘটনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মামলায় জামিন মিলেনি সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনের।

 

মঙ্গলবার তার জামিন আবেদন উত্থাপিত না হওয়ায় তা খারিজ করে দেন আদালত। বিচারপতি মো. মঈনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি খিজির হায়াতের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

 

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। আসামী মোয়াজ্জেমের পক্ষে ছিলেন আইনজীবি আহসান উল্লাহ ও সালমা সুলতানা।

 

এছাড়া এসময় মামলার বাদী হাইকোর্টের আইনজীবী সৈয়দ সায়েদুল হক সুমনও উপস্থিত ছিলেন।

 

গত ১৭ জুন সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আস সামছ জগলুল হোসেন সাবেক ওসি মোয়াজ্জেমের জামিন আবেদন নাকচ করে দিয়ে কারাগারে পাঠানো নির্দেশ দেন।

 

এর আগে ১৬ জুন তাকে রাজধানীর শাহবাগ থেকে গ্রেফতার করা হয়।

গত ২৭ মার্চ মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলার বিরুদ্ধে নুসরাতকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে থানায় অভিযোগ দেন নুসরাতের মা।

 

পরে তৎকালীন ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন নুসরাতকে ডেকে নিয়ে জবাবন্দির নামে নুসরাতের অমতে ভিডিও ধারণ করেন এবং যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেন। মূহুর্তেই তা সারাদেশে তোলপার সৃষ্টি করে।

 

পরে গত ১৫ এপ্রিল হাইকোর্টের আইনজীবী সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেন।

 

আদালত মামলাটি তদন্ত করতে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআিই) কে নির্দেশ দেন।

 

তদন্ত করতে গিয়ে পিবিআই ঘটনার সত্যতা পায়। পরে আদালত মামলা আমলে নিয়ে ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

 

দীর্ঘ জল্পনার পর পরোওয়ানার ১৪ দিনের মাথায় পুলিশ ১৬ জুন তাকে গ্রেফতার করে আদালতে হাজির করলে আদালত কারাগারে পাঠান।

(Visited 1 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

14 − 6 =